সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০২৪

এসইও (SEO) কি?

আসসালামু আলাইকুম, উড্ডয়নে আপনাকে স্বাগতম!
কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছেন।

আজ আমরা আলাপ করবো SEO বা Search Engine Optimization সম্পর্কে।

SEO (এসইও) বা Search Engine Optimization (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন) হচ্ছে এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে যেকোন নির্দিষ্ট কীওয়ার্ড বা বিষয় দিয়ে সার্চ দিলে তা সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্টে ওই নির্দিষ্ট কীওয়ার্ড রিলেটেড যত তথ্য রয়েছে তার সবকিছুই প্রদর্শন করে বা আমাদের দেখায়। SEO করার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, সার্চ রেজাল্টে অন্য সকল সাইটকে পেছনে ফেলে আপনার বা আমার সাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পেজের রেঙ্কিং-এ নিয়ে আসা। অথবা কমপক্ষে প্রথম বা ২য় পেজের সেরা ১০ এর মধ্যে থাকা। মূলতঃ একটি ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনের ১ম বা ২য় পেজে নিয়ে আসতে পারলেই প্রচুর পরিমানে ভিজিটর সাইটে নিয়ে আসা সম্ভব হয়। SEO মূলত এমন একটি টেকনোলজি, যা সঠিকভাবে যে কেউ রপ্ত করতে পারলেই একটি নুতন ওয়েবসাইটেও প্রচুর ভিজিটর নিয়ে আসা সম্ভব।

উপার্জনের ক্ষেত্রঃ
ব্লগিং এর মাধ্যমে আয়ঃ আমরা জানি ব্লগিং হচ্ছে অনলাইনে আয়ের একটি দীর্ঘমেয়াদী ও ফলপ্রসু পদ্ধতি। আপনি ব্লগিং এর মাধ্যমে Google Adsense, Affaliate Marketing, প্রাইভেট এ্যাড, ই-বুক বিক্রয় ইত্যাদির মাধ্যমে আয় করতে পারবেন, কিন্তু তারজন্য অবশ্যই আপনার ব্লগের SEO ভালোভাবে করে নিতে হবে।

Google Adsense: Google Adsense এর মাধ্যমে উপার্জনের পদ্ধতি সম্পর্কে আমরা সবাই মোটামুটি কম বেশী জানি। Google Adsense এ আবেদন করার জন্য একটি ওয়েব সাইট তৈরি করে ২০/৩০ টি ইউনিক পোষ্ট দিলেই Adsense এপ্রুভ হবে। ধরলাম আপনার গুগল আডসেন্স এপ্রুভ হলো কিন্তু ভিজিটর না আসলে উপার্জন হবে কিভাবে? এখানেই রয়েছে মুল SEO -এর ব্যবহার। SEO -এর পূর্ণাঙ্গ ব্যাবহার-ই এনে দিতে পারে আপনার সাইটে প্রচুর ভিজিটর। আপনি যদি প্রতিদিন ১০০০ ভিজিটরও নিয়ে আসতে পারেন তাহলেই দেখা যাবে গড়ে প্রতিদিন আপনার সাইট থেকে ৫/১০ ডলার আর্ন হচ্ছে। একটি খুব সাধারণ মানের সাইটেও প্রতিদিন ৫০০/১ হাজার ভিজিটর আনা সম্ভব যদি সঠিক SEO প্রয়োগ করা যায়।

এফেলিয়েট মার্কেটিং- Google Adsense এর মত এফেলিয়েট মার্কেটিং-ও একটি সন্মানজনক আয়ের পদ্ধতি বা উপায়। এ পদ্ধতিতে অনলাইনে পন্য বিক্রেতার সাইটের এফেলিয়েট লিংক বা ব্যাক লিঙ্ক আপনার সাইটে দিতে হবে। যখন কোন ভিজিটর সেই এফেলিয়েট লিঙ্ক-এ ক্লিক করে উক্ত সাইটে গিয়ে কোন পন্য ক্রয় করবে তখন আপনি সেই পণ্যের উপর নির্দ্দিষ্ট কমিশন পাবেন। এখানেও একই ফ্যাক্টর আর তা হচ্ছে ভিজিটর। অর্থাৎ, আপনার সাইটে যদি প্রচুর ভিজিটর ঢুকে এবং তার একটি অংশ উক্ত এফেলিয়েট লিংকে ক্লিক করবে এবং পন্য ক্রয় করবে। কিন্তু প্রচুর ভিজিটর একমাত্র SEO এর মাধ্যমেই আনা সম্ভব। কখনো কখনো এফেলিয়েট মার্কেটিং কমিশন এর উপার্জন Google Adsense -এর চেয়েও বেশি হয়ে থাকে। কারণ হচ্ছে, একটি পন্য যখন কেউ ক্রয় করবে, পণ্যটির মূল্য যদি ১০০ ডলার হয়, তবে আপনি কমিশন পাবেন ২০ থেকে ৩০ ডলার এমনকি ভাগ্য ভালো হলে ৫০ ডলার পর্যন্ত-ও পাবেন।

ফ্রিল্যান্সিং- SEO এর অপরিসীম প্রয়োজনীতার কারনে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটে / মার্কেটপ্লেসে এই কাজের চাহিদা অনেক। আবার ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে যত ধরনের কাজ রয়েছে তার মধ্যে ওয়েব ডিজাইনের পরই রয়েছে SEO-এর চাহিদা। অর্থাৎ SEO এর অনপেজ অপটিমাইজেশন এবং অফপেজ অপটিমাইজেশন বা Link Building, Forum Posting, Social Networking ইত্যাদি তে দক্ষ হতে পারলেই আপনার জন্য রয়েছে অফুরন্ত কাজ আর টাকা। আপনি একটু লক্ষ্য করলেই দেখবেন, অন্যান্য কাজের তুলনায় SEO এর কাজের Competition কম কিন্তু মোটামুটি অনেক ভাল বাজেটের কাজ। এছাড়াও, ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটে ওয়েব ডিজাইনের কাজ পেতে হলেও SEO এর দক্ষতা প্রয়োজন। কেননা অধিকাংশ বায়ার তাদের ওয়েবসাইট ডিজাইনের পাশাপাশি SEO -ও একেবারেই করিয়ে নেন।

নিজস্ব পন্য বিক্রয়ঃ এছাড়াও আপনি আপনার নিজের অনলাইন শপ বা ইকমার্স সাইট তৈরি করে নিজস্ব পন্য বিক্রয় করতে পারেন। এক্ষেত্রেও আপনার দরকার ভিজিটর অর্থাৎ, তারমানে দেখা যাচ্ছে সবকিছুর জন্যই SEO মাষ্ট।

লেখক পরিচিতিঃ

Faruk Hossain Mithu
Faruk Hossain Mithuhttps://mithu.kholifa.com
I'm Linux Admin, traveler with a passion for movies, tech and programming. Navigating the digital realm with expertise, I enjoy exploring diverse landscapes and staying at the forefront of technology trends. Code enthusiast and cinephile, blending a love for innovation with a sense of adventure.
- বিজ্ঞাপন -
সম্পর্কিত পোস্টগুলো
- বিজ্ঞাপন -

জনপ্রিয় পোস্টগুলো

- বিজ্ঞাপন -
error: Content is protected !!